Education

বহুরূপী করোনা ভাইরাসের তান্ডবে বিপর্যন্ত ভারত

তথ্য সংগ্রহ

বহুরূপী করোনা ভাইরাসের তান্ডবে বিপর্যন্ত ভারত

করোনা ভাইরাস নতুন রূপে আঘাত এনেছে ভারতে মতো একটি শক্তিশালী দেশেও। আজ ভারতে অবস্থা খুবই শোচনীয়। নতুন  করে ভারতে ভ্যারিয়েন্ট কোভিড দেখা দিয়েছে । যা অত্যন্ত শক্তিশালী। সোস্যিয়াল মিডিয়াতে দেখা যাচ্ছে- ভারতের কোন হাসপাতালে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের কোন জায়গা নেই। একই বিছানায় দুই/তিন জন করে রাখা হয়েছে। তাতে জায়গা দিতে পারছেনা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ । হিমশিম খাচ্ছে ভারতের সরকার। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে পাশ্বপর্তী দেশগুলো।

কিছু কিছু হাসপাতালের অবস্থা আরো করুন। ডাক্তাররাও হাজার চেষ্টা করেও এর কোন সমাধান খুঁজে পাচ্ছেনা। তাদের চোখের সামনে হাজার হাজার লোক মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। হাসতালের একটা বিছানায় যতটুকু জায়গা সব টুকু জায়গা পূরণ করে আছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগিরা। অনেকেই বসে বসে রাত অতিবাহিত করতেছে। শুয়ে থাকার মতোও কোন জায়গা অবশিষ্ট নেই।

অনেকেই হাসপাতালে জায়গা না পাওয়ায় রাস্তার উপর শুয়ে শুয়ে অক্সিজেন গ্রহণ করতেছেন। ভারতের যাতায়াতের রাস্তা গুলো এখন হাসপাতালের বিছানায় রূপান্তরিত হয়ে গেছে। প্রতিটি রাস্তায় করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগিরা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

.

ভারতের রাস্তার পাশে পড়ে থাকা মানুষে আর্তনাথ

.

ভারতের বাতাসে প্রবাহিত হচ্ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির আর্তনাথের চিৎকার। রাস্তার পাশে পড়ে থাকা রোগির আত্মীয় স্বজনদের হাহাকার আর্তনাথ। এমন করুন দৃশ্য ভারত আজ পর্যন্তও দেখেনি।

.

ভারতের করোনা ভাইরাসের করুন ভিডিও ফুটেজ

.

এহেন পরিস্থিতিতে বসে নেই ভারতের অল্প সংখ্যক মুসলিম সম্প্রদায় লোকজন। এই কঠিন পরিস্তিতে মসজিদের মত পবিত্র ইবাদতের একটি বিরাট সংখ্যক জায়গা ছেড়ে দিয়েছেন কোভিড আক্রান্ত রোগিদের জন্য।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতের এই বিপর্যয় পরিস্থিতে অক্সিজেন সরাবারহের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এবং ধর্ম-বর্ণ বিবাদ ভুলে একে অন্যকে সাহায্য করার আহ্বান জানিয়েছেন। সৌদি আরবও এগিয়ে এসছেন। ভারতকে ৮০ মেট্রিক টন লিকুুইড অক্সিজেন ও ৫০০০ সিলিন্ডার দিয়ে সাহায্যে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সৌদি আরব।

তাতেও মৃত্যুর মিছিল কমানো যাচ্ছে না। ক্রমশই বেড়ে যাচ্ছে মৃত্যুর মিছিলের যাত্রী। একের পর এক করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত দেহে রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। এ যেন এক ভয়াবহ বিপদ সংকেত।

পরিবার থেকে শেষ বিদায় টাও সামনা সামনি নিতে পারছেন স্বজনরা। হাসপাতালের বেডে শুয়ে শুয়ে ক্ষমা চাওয়ার দৃশ্য কাঁদিয়েছে পুরা বিশ্ববাসীকে। এহেন পরিস্থিতে বিশ্ব আজ হতভম্ব। চোখের সামনে শেষ হয়ে যাচ্ছে, দেখেও কিছু করতে পারছেনা ।

.

ভারতে করোনা ভাইরাসের আঘাতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার করুন ভিডিও ফুটেজ

.

প্রতিদিন মৃত্যুর সংখ্যা এতই বেড়ে যাচ্ছে যে, শেষ বিদায়ের কাজও ঠিক মতো করতে পারছেন না বিভিন্ন শশাণ কর্মী ও কবরস্থানের লোকেরা। গণদহণ করা হচ্ছে অনেক জায়গায়। রাত-দিন জ্বলছে চিতার আগুন। তবুও যেন শেষ করতে পারছেন না কর্মীরা। এহেন পরিস্থিতে ধর্ম-বর্ণ বিবাদ ভুলে অনেক স্বেচ্ছা-সেবক যোগ দিয়েছে শেষ কার্য পরিসমাপ্তি করতে।

.

দিনরাত জ্বলছে চিতার আগুন । ভিডিও দেখুন।

.

.

.

.

.

.

মহান আল্লাহর কাছেই প্রার্থনা করি, মহান আল্লাহ যেন এই কঠিন মসিবত থেকে আমাদের সকলকে হেফাযত করেন। আমিন।

.

.

 

.

☑ সব শেষে আপনাকে বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি ,  আমাদের এই ছোট্ট উদ্যোগটি  আপনাদের যদি ভালো লাগে তবে সর্বদা আমাদের পাশে থেকে আমাদের সাহস বাড়াতে পোস্ট গুলোতে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে আমাদের কাজের স্পৃহা আরো বাড়িয়ে দিতে আপনারা বিশেষ ভূমিকা রাখবেন এবং সেই সাথে আপনার একটি শেয়ার হয়তো আপনার নিকটস্থ কারো জন্য একটি নতুন দরজা খুলে দিতে পারে । সেই আশা বাদ ব্যক্ত করে সবাইকে আবারো ধন্যবাদ দিয়ে বিদায় নিচ্ছি।  আজ এ পর্যন্ত । সবাই ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন। দেখা হবে পরবর্তী নতুন কোন আর্টিকেলে।  আল্লাহ হাফেজ।

.

.

.

আমাদের আরো পপুলার আর্টিকেল

 

Model Test :

Health Tips :

Outsourcing/Online Income :

Others Articls :

One Comment

  1. সত্যি ভীষণ শোচনীয় অবস্থা। আল্লাহ্ কে ডাকা ছাড়া কোনো উপায় নেই আল্লাহ্ তুমি মাফ করে দাও।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!