Digital Marketing

বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশল || সকল উদ্যোক্তাদের মতামত || অনলাইন মার্কটিং || How to improved your online marketing skill

সকল উদ্যোক্তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশল পর্যালোচনা।

সকল উদ্যোক্তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশল পর্যালোচনা।

আর.কে মিষ্টি  আপুর মতে,

=================================

অনলাইন মার্কটিং এর জন্য

  • প্রথমে নিজস্ব ব্র্যান্ডিং এর পরিচিতি থাকা দরকার। সেজন্য আমাদের বেশি বেশি গঠনমূলক পোস্ট এবং কমেন্ট করতে হবে।
  • নিজস্ব প্রোডাক্ট সম্পর্কে ভালো জ্ঞান থাকতে হবে, যাতে করে কাস্টমারকে প্রোডাক্ট সম্পর্কে অবগত করা যায়। তাছাড়া কাস্টমার ডিমান্ড সম্পর্কে ধারনা থাকতে হবে।
  • নিজ অভিজ্ঞতা থেকে যেটা বুঝেছি- সেল বাড়ানোর কাস্টমার কনভিন্সিং এর একটা ব্যপার আছে। হাজার হাজার সেলার আছে এবং তারা অনেকেই একই মানের প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করছে। তবে আমার থেকে কাস্টমার কেনো কেনো নিব?? এর উত্তর হলো আপনার কাস্টমার কনভিন্সিং চক্রটা বুঝতে হবে।
  • ব্যবসার কথা চিন্তা করতেই আমার মাথায় যেটা আসে, সেটা হচ্ছে প্রোডাক্টের গুণগত মান! প্রোডাক্টের গুণগত মান ধরে রাখতে পারলে বিজনেস আজ অথবা কাল সম্প্রসারিত হবেই। কারন ভালো জিনিসের কদর সবাই বুঝে।
  • এখন আসি প্রোডাক্টের ফটোসেশান নিয়ে। কথায় আছে – আগে দর্শনদারী, পরে গুণ বিচারী। সেক্ষেত্রে প্রোডাক্টকে এমনভাবে প্রেজেন্ট করতে হবে, যেনো তা ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারে।
  • কপি করা যাবে না– একথা বলার কারন একটাই “অনেকেই নিজ প্রোডাক্ট সেল হচ্ছে না কিন্ত পরিচিত একজনের বেশ সেল হচ্ছে দেখে হতাশায় পড়ে যায়। এবং সে ঐ মানুষটির মতো সেল পেতে নিজ প্রোডাক্টের কদর করে না।” এতে সেল তো হবেই না বরং পাগল হয়ে যায় উদ্যোক্তা। তাই হতাশ না হয়ে শ্রম দিতে হবে প্রচুর, আপনার পাশের যে মানুষটার আজ এতো সেল হচ্ছে,তার পেছনের গল্প হয়তো অনেক সুদূরপ্রসারী। তাই প্রোডাক্ট কপি না করে, তার কর্মকে অনুসরণ করুন।
  • কোয়ালিটি- সেল বাড়াতে কখনো কেয়ালিটি খারাপ করবেন না, এতে দিন শেষে আপনার কোনো কাস্টমার থাকবে না। এক্ষেত্রে সেল বাড়াতে কোয়ালিটি মেনটেইন করতে হবে, কোয়ান্টিটি নয়।
  • ঋতু– ঋতু পরিবর্তনের বিষয়টা অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। কারন মানুষ গ্রীষ্মকালে যে ফেব্রিক বাছাই করবে, শীতকালে অবশ্যই সেটা বাছাই করবে না। ঋতু অনুযায়ী কাস্টমারের চাহিদা ভিন্ন হয়, সেদিকে আমাদের পরিপূর্ণ খেয়াল রাখতে হবে।
তাছাড়া মার্কেটিং ও সেল বাড়ানোর জন্য আরও কিছু কমন বিষয় থাকে- ধৈর্য্য, সততা, সৎ নীতি, সঠিক জ্ঞানের প্রয়োগ, ভালো ব্যবহার ইত্যাদি।
বি.দ্রঃ আমি যেহেতু আমি শাড়ি ও হিজাব নিয়ে কাজ করছি। তাই আমার মতামত আমার প্রোডাক্টের উপর ভিত্তি করেই দিলাম।
RK Misty
RK Misty

 

নাম :  মিষ্টি  

কাজ করছেন :  শাড়ি ও হিজাব নিয়ে 

ওনার অব  : Sparkle n Fancy

 

 

 

 

 

 

 

 

 


Name : Fahima Akther

 

আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের জনগন আর বর্তমানে অনলাইন ব্যবসা অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।
মার্কেটিং করা, বিক্রয় বৃদ্ধি করা নিয়ে আমরা অনেক মত প্রকাশ করি।
কিছু মতামত নিচে তুলে ধরা হলো
📌আমাদের মনে রাখতে হবে আমি যে পন্য বিক্রয় করব তার সম্পর্কে সব তথ্য আমি জানি কি না, সব তথ্য জানা থাকলে সহজেই ক্রেতাকে সেই সম্পর্কে অবগত করতে পারবো।
📌আমি যা বিক্রি করব তা যেন ক্রেতার প্রয়োজনের মধ্যে পড়ে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ কিছু কিনে না।প্রয়োজনিও জিনিস দেখলেই আমাদের কেনার আগ্রহ বাড়ে।
📌পন্যের মান যাচাই করা এটি অনেক গুরুত্ব পূর্ণ বিষয়। কথায় আছে যেই পন্য ভালো দাম তার একটু বেশি।পন্যের মান ভালো থাকলে দামটা কম প্রাধান্য পায়। তাই পন্যের মান ভালো রাখতে হবে যেন ক্রেতা আকর্ষীত হয় এবং আবার পন্য নিতে সম্মত হয়।
📌আরেকটি বিষয় হলো মূল্য নির্ধারণ।মূল্য নির্ধারণ বেশি করলেও সমস্যা আবার কম করলেও সমস্যা। বেশি দাম থাকলে কেউ কিনবে না আর কম দাম হলে ব্যবসা নষ্ট হয়ে যাবে।
📌কাস্টমাদের সাথে সুসম্পক তৈরী করা, মাঝে মাঝে খোঁজ খবর নেয়া, নতুন কোন পন্য আসলে তাদের জানানো।
📌বিভিন্ন অকেশনে এবং সিজনে কোন ধরনের পন্যের চাহিদা থাকতে পারে সেই সম্পর্কে জ্ঞান রাখা।
আমারের ব্যবসা নির্ভর করে কাস্টমারদের চাহিদার উপর ভিত্তি করে। ব্যবসায়ের ভালোর জন্যে আমরা অনেক সময় অনেক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি, বিক্রি বৃদ্ধির জন্যে অনেক কৌশলও অবলম্বন করে থাকি ।
উপরের বিষয় গুলো ছারাও অনেক বিষয় আছে যা আমাদের ব্যবসাকে উন্নত করতে সাহায্য করে।

Name : Fahima Akther

কাজ করছেন : আচার ও টাইডাই নিয়ে।

ফেসবুক পেইজ : FIANA

 

 

 

 

 

 


Name : Ishraque Bin Khalil

কিভাবে মার্কেটিং করলে সেল বেশি হবে ?
আমার কাছে মার্কেটিং বলতে বুঝায় নিজেকে একটু ভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করা। দশ জনের মাঝে নিজেকে একটু আলাদা করে তুলে ধরা।
মূল বিষয় আমরা সবাই একজন আরেকজন থেকে আলাদা তাই নিজের সকিয়তা ধরে রেখে নিজের মতো করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করা।
আমাদের আশে পাশে অনেক ভালো ডিজিটাল মার্কেটার রয়েছে। আমি মনে করি তাদের পোস্ট গুলো মনোযোগ দিয়ে পড়লেই এবং তাদের স্টাইল অবলোকন করে নিজের স্টাইল তৈরি করলেই হয়ে উঠতে পারবেন একজন সফল অনলাইন মার্কেটার।
কি কি করলে বিক্রয় বেশি হবে?
উ: সেল হওয়ার একটাই এবং একটাই কৌশল! তা হল বিশ্বাস।
যদি ক্রেতা আপনার উপর বিশ্বাস করতে পারেন তাহলেই আপনার সেল হবে।
তাহলে প্রশ্ন হল কিভাবে এই বিশ্বাস স্থাপন করবেন?
যত বেশি পরিচিতি হবে আপনার, ক্রেতার বিশ্বাস ও বারবে ততো বেশি।
তাই আমার সাজেশন থাকবে বেশি বেশি পরিচিতি বারান তাহলেই আপনার সেল বাড়বে ইনশাআল্লাহ।
কোন কৌশল অবলম্বন করলে বিক্রয় বৃদ্ধি হবে?
উ: বিক্রয় বৃদ্ধির প্রথম ও প্রধান কৌশল সততা। আপনার উদ্যোগ এবং পন্য নিয়ে আপনি সৎ থাকলে আপনার সেল বাড়বেই আজকে হোক বা কালকে।
এ ছাড়া আরেকটি বিষয় নিয়ে ভাবতে হবে যে আপনার টার্গেটেড কাস্টমার কি চায় এবং তার সেই পন্য কেনার জন্যে কত টুক খরচের ইচ্ছে আছে। অর্থাৎ মার্কেট অ্যানালাইসিস করতে হবে। মার্কেট অ্যানালাইসিস করে পণ্যের দাম ঠিক করলে সেল বৃদ্ধি হওয়ার সম্ভবনা অনেক বেশি।
আমার জ্ঞান খুবই ক্ষুদ্র, তবে এইটুক যা লিখলাম পুরটাই নিজের মতামত। ভালো লাগলে জানাবেন, আরো লিখবো ইনশাআল্লাহ।

Name : Ishraque Bin Khalil

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

চলবে——————————

 

আমাদের আরো পপুলার আর্টিকেল

 

 

One Comment

  1. কৌশল অবলম্বন করে সামনে এগিয়ে যাচ্ছি। ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!