Motivational Speech

সফলতার কার্যকরী গোপন ৬ টি টিপস

SM ALAMGIR

সফলতা শব্দটি সবার কাছেই প্রিয় । এই প্রিয় শব্দটি অর্জন করতে অনেকেরই জান বের হয়ে যায়। জীবনে সফলতা লাভ করতে কে না চায়। কিছু জিনিস এড়িয়ে চললে এবং নিজের লক্ষ্য ঠিক করে সে অনুযায়ী চেষ্টা করে গেলে সফলতা লাভ করাটা কিন্তু কঠিন কিছু না। তবে পৃথিবীতে এমন অনেকেই আছে যারা জীবনে অন্যান্য বিষয়কে প্রাধান্য দিতে গিয়ে নিজের সফলতার পথ থেকে অনেক দূরে সরে যায়।

তাই সবকিছুর আগে জেনে নেয়া প্রয়োজন কোন বিষয়গুলো সফলতার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় এবং জীবনে সফলতা পেতে হলে কোন বিষয়গুলোকে এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। এখন তাহলে চলো জেনে নেয়া যাক সফলতা পেতে হলে না বলতে হবে যে বিষয়গুলোকে, সেগুলো সম্পর্কে।

1)  অল্পতেই হতাশ হয়ে যাওয়া :

অল্পতেই হতাশ হয়ে গেলে জীবনে কখনো সফলতা লাভ করা যায় না। নতুন একটি কাজ করতে গেলে কিংবা কোনো একটি কাজ শুরু করলে এর মধ্যে ভুল হতেই পারে, ফলাফল আশানুরূপ নাই হতে পারে কিন্তু সেজন্য হতাশ হয়ে পড়লে কখনো সামনে এগোনো যায় না। তাই কোনো কিছু শুরু করলে মাঝপথে হতাশ হয়ে সেটা ছেড়ে না দিয়ে সব সময় শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করে যাবে। তাহলে দেখবে কোনো একসময় তুমি ঠিকই সেটাতে সফলতা পেয়ে গেছো।

2)  একসাথে অনেক গুলো কাজ করা :

একসাথে অনেককিছুর পেছনে ছুটতে গেলে দেখা যায় শেষপর্যন্ত কোনটাতেই আর সফলতা পাওয়া যায় না। তাই একসাথে অনেক কিছুতে জড়িয়ে না পড়ে প্ল্যান করে একটির পর একটি কাজ করার চেষ্টা করবে। এতে করে একদিকে যেমন তোমার নিজের উপর চাপ অনেক কমে আসবে অন্যদিকে তেমনি তোমার কাজগুলোও ভালোভাবে শেষ হয়ে যাবে।

৩. অতীত নিয়ে বেশি বেশি দুশ্চিন্তা করা:

সব সময় অতীত নিয়ে চিন্তা করলে, অতীতে কী হয়েছে সেসব ভেবে থেমে থাকলে জীবনে কখনো এগোনো যায় না। জীবনে ব্যর্থতা থাকবেই, খারাপ সময় থাকবেই, কিন্তু সেগুলো নিয়ে সবসময় চিন্তা না করে নিজের উপর ভরসা রেখে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে। অতীতের ভুলগুলো শুধরে নিয়ে কীভাবে ভালো কিছু করা যায় সেই চেষ্টা করবে। তাহলে দেখবে একসময় তুমি সত্যি সত্যিই সফলতার কাছাকাছি পৌঁছে যাবে।

৪. ভবিষ্যতের জন্য অপেক্ষা করা :

ভবিষ্যতে কী হবে তা আমরা কেউই জানি না। এমনও হতে পারে ভবিষ্যতে তোমার জন্য অনেক ভালো কিছু অপেক্ষা করছে। আবার এর বিপরীতটাও কিন্তু হতে পারে। ভবিষ্যতের আশায় বসে থাকলে শুধু শুধু তোমার জীবনের মূল্যবান সময়গুলোই নষ্ট হবে, অথচ কাজের কাজ কিছুই হবে না। তাই যারা ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সময় নষ্ট করছো তারা ভবিষ্যতের জন্য অপেক্ষা না করে আজ থেকেই, এখন থেকেই জীবনে এগিয়ে যাওয়ার দৌড় শুরু করে দাও।

৫. সবকিছু নিয়ে নেগেটিভ চিন্তা করা:

সবকিছু নেগেটিভ দৃষ্টিতে দেখা মানুষগুলোর জীবনেই ব্যর্থতা জিনিসটা সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। সবকিছু নিয়ে নেগেটিভ চিন্তা করলে, সবকিছু নেগেটিভলি নিলে ধীরে ধীরে একসময় তোমার চিন্তাভাবনাও নেগেটিভ হতে থাকবে। তখন তুমি তোমার নিজের উপরও ভরসা হারিয়ে ফেলবে, নতুন কোনো কাজ করার সাহস পাবে না। তাই সব সময় নেগেটিভ চিন্তা না করে, পজিটিভ চিন্তা করা উচিত।

৬. অন্যের কথায় কান দেওয়া:

তুমি যখনই ভালো কিছু করতে যাবে তখনই দেখবে কেউ না কেউ সেটাতে বাধা দেয়ার চেষ্টা করবে, নানা রকম নেগেটিভ কথা বলবে কিন্তু সেসব কথা কখনও কানে নেয়া উচিত হবে না। তাদের কথা শুনে সবকিছু ছেড়ে দিলে তুমি কখনো সফলতার ধারেকাছেও পৌঁছাতে পারবে না। তাই এসব নিয়ে চিন্তা না করে নিজের কাজটা ঠিকভাবে করার চেষ্টা করবে। তাহলে দেখবে একসময় তারা বিরক্ত হয়ে নিজেরাই এসব বলা বন্ধ করে দিবে।

তুমি যদি এসব বিষয়কে না বলতে পারো, জীবনে চলার পথে এই বিষয়গুলো এড়িয়ে চলতে পারো, তাহলে দেখবে সফলতা জিনিসটা খুব সহজেই তোমার কাছে ধরা দিবে আর তুমিও হয়ে উঠবে সফল মানুষদের একজন।

.

.

.

☑ সব শেষে আপনাকে বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি ,  আমাদের এই ছোট্ট উদ্যোগটি  আপনাদের যদি ভালো লাগে তবে সর্বদা আমাদের পাশে থেকে আমাদের সাহস বাড়াতে পোস্ট গুলোতে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে আমাদের কাজের স্পৃহা আরো বাড়িয়ে দিতে আপনারা বিশেষ ভূমিকা রাখবেন এবং সেই সাথে আপনার একটি শেয়ার হয়তো আপনার নিকটস্থ কারো জন্য একটি নতুন দরজা খুলে দিতে পারে । সেই আশা বাদ ব্যক্ত করে সবাইকে আবারো ধন্যবাদ দিয়ে বিদায় নিচ্ছি।  আজ এ পর্যন্ত । সবাই ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন। দেখা হবে পরবর্তী নতুন কোন আর্টিকেলে।  আল্লাহ হাফেজ।

.

.

.

আমাদের আরো পপুলার আর্টিকেল

 

Model Test :

Health Tips :

Outsourcing/Online Income :

Others Articls :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!