Life Style

Are you positive or negative? তুমি ইতিবাচক, নাকি নেতিবাচক ?

SM ALAMGIR

Are you positive or negative?

Let’s test ourselves—

Look at the picture, take a good look and think about the picture. As shown in a picture here, an attempt is being made to kill a child with a boot! Isn’t that so..?
Now if you are positive, you will not share this picture on your Facebook as soon as you see it. Rather, you will study the picture a little, try to find out the real truth by checking and saving.
Then you will see, the picture is a fake picture made in Photoshop. And in this way, a class of online activists is trying to mislead you by spreading lies and propaganda in order to make your positive attitude negative.
This is where you have to be careful and positive.
So my advice is to check before uploading anything on Facebook or social media. Question your positive attitude. Remember, wrong or false information can confuse and destroy a nation.
History says, the creation of civilization from the darkness. You love the world, the world will give you the gift of civilization.
And yes, if this picture—status of mine is positive for you, you can upload or share it on your Facebook.

তুমি ইতিবাচক, নাকি নেতিবাচক

আসো নিজেকে পরীক্ষা করি—

ছবিটি দেখ, ভালো করে দেখ এবং ছবিটি নিয়ে চিন্তা করো। এখানে একটি ছবিতে দেখানো হয়েছে, পায়ের বুট দিয়ে একটি শিশুকে হত্যার চেষ্টা করা হচ্ছে! তাই না..?
এখন তুমি যদি ইতিবাচক হও, তাহলে তুমি এই ধরনের ছবি দেখা মাত্রই তোমার ফেসবুকে শেয়ার করবে না। বরং তুমি ছবিটি নিয়ে একটু স্টাডি করবে, যাচাই-বাচাই করে প্রকৃত সত্য জানার চেষ্টা করবে।
তখন দেখবে, ছবিটি ফটোসপে করা একটা ফেইক ছবি। আর এভাবেই তোমার ইতিবাচক মনোভাবকে নেতিবাচক করার জন্য একশ্রেণির অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট রীতিমত মিথ্যাচার আর অপপ্রচার করে তোমাকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।
এখানেই তোমাকে সাবধান ও ইতিবাচক হতে হবে।
তাই আমার পরামর্শ-ফেসবুকে কিংবা সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনো কিছু আপলোড করার আগে একটু যাচাই করো। নিজের ইতিবাচক মনোভাবকে প্রশ্ন করো। মনে রাখবে, একটি ভুল কিংবা মিথ্যা তথ্য একটি জাতিকে বিভ্রান্ত করতে পারে, ধ্বংস করে দিতে পারে।
ইতিহাস বলে, অন্ধকার থেকেই সভ্যতার সৃষ্টি। তুমি পৃথিবীকে ভালোবাসা দাও, পৃথিবী তোমাকে সভ্যতা উপহার দিবে।
আর হ্যাঁ, তোমার কাছে আমার এই ছবি—স্ট্যাটাস ইতিবাচক হলে তুমি তোমার ফেসবুকে আপলোড কিংবা শেয়ার করতে পারো।
.

.

.

☑ সব শেষে আপনাকে বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি ,  আমাদের এই ছোট্ট উদ্যোগটি  আপনাদের যদি ভালো লাগে তবে সর্বদা আমাদের পাশে থেকে আমাদের সাহস বাড়াতে পোস্ট গুলোতে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে আমাদের কাজের স্পৃহা আরো বাড়িয়ে দিতে আপনারা বিশেষ ভূমিকা রাখবেন এবং সেই সাথে আপনার একটি শেয়ার হয়তো আপনার নিকটস্থ কারো জন্য একটি নতুন দরজা খুলে দিতে পারে । সেই আশা বাদ ব্যক্ত করে সবাইকে আবারো ধন্যবাদ দিয়ে বিদায় নিচ্ছি।  আজ এ পর্যন্ত । সবাই ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন। দেখা হবে পরবর্তী নতুন কোন আর্টিকেলে।  আল্লাহ হাফেজ।

.

.

.

আমাদের আরো পপুলার আর্টিকেল

 

Model Test :

Health Tips :

Outsourcing/Online Income :

Others Articls :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!